বঙ্গবন্ধু নামে কোরবানী দেবেন কুয়াকাটা পৌর মেয়র আনোয়র - BNews Bulleting

বাংলাদেশ, ১২ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১

বঙ্গবন্ধু নামে কোরবানী দেবেন কুয়াকাটা পৌর মেয়র আনোয়র - BNews Bulleting

বঙ্গবন্ধু নামে কোরবানী দেবেন কুয়াকাটা পৌর মেয়র আনোয়র

প্রকাশ: ২০ জুলাই, ২০২১ ৯:০৮ : অপরাহ্ণ

আবুল হোসেন রাজু,কুয়াকাটা : পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটায় জাতির জনক এবং প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে কুয়াকাটায় ১২টি পশু কোরবানী করবেন পৌর মেয়র ও এক কাউন্সিলর। স্থানীয় বাজার থেকে দুটি মহিষ এবং ১০টি গরু ক্রয় করা হয়েছে। কোরবানীর জন্য ক্রয় করা পশু গুলো পৌর সভার সকল ওয়ার্ডের নির্ধারিত লোকবল নিয়োগ করে লালন পালন করা হচ্ছে। কোরবানীর প্রথম দিন পশু গুলো সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে প্রধান মন্ত্রীর নামে দুটি গরু কোরবানী করা হবে এবং অসহায় পরিবারের মাঝে মাংস পৌঁছে দেয়ার উদ্যোগ গ্রহন করেছে স্থানীয় সাত নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. শহিদ দেওয়ান। একই ভাবে নিজ অর্থায়নে ক্রয় করা দুটি মহিষ এবং আটটি গরু এশিয়ার লৌহমানব জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর নামে কোরবানী করবেন এবং  কুয়াকাটা পৌরসভার সকল ওয়ার্ডে বসেই জবাই করা পশুর মাংস হাজারো জেলে,দিনমজুর এবং কৃষকদের বাড়ি বাড়ি পৌছে দেয়ার উদ্যোগ গ্রহন করেছে পৌর মেয়র মো.আনোয়ার হাওলাদার।

স্থানীয় বাসিন্দা মো.আবু বক্কর   বলেন, বর্তমানে করোনা পরিস্থিতিতে কুয়াকাটার সর্বস্তরের মানুষের মাঝে চড়ম সঙ্কট সৃস্টি হয়েছে। এমন সময় মধ্যবিত্ত বহু পরিবার আর্থিক কারনে কোরবানী দিতে পারছেন না। সে কারনে কুয়াকাটা পৌর মেয়র এবং এক কাউন্সিলর নিজস্ব অর্থায়নে এবং নিজস্ব লোকবলের মাধ্যমে অসহায় এবং দরিদ্র পরিবারের মাঝে নিজেরাই কোরবানীয় মাংস পৌঁছে দিবেন। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু এবং প্রধান মন্ত্রীর নামে পশু কোরবানী দেওয়ার এই উদ্যোগ সময় উপযোগি এবং জনবান্ধব বলে গ্রহন করেছেন কুয়াকাটাবাসী।

এব্যাপারে কুয়াকাটা পৌর সভার সাত নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. শহিদ দেওয়ান বলেন, আমি কৈশর থেকে আওয়ামী লীগ রাজনীতির সঙ্গে জড়াই বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার আদর্শের কারনে। ছাত্র জীবন থেকে তার আদর্শকে পুঁজি করে রানীতি করতে মাঠে নেমেছি। জন কল্যান কার্যক্রমের সঙ্গে নিজেকে সম্পৃক্ত রেখেছি। তার ধারাবাহিকতায় আমাকে অল্প বয়সে আমাকে জনগণ তাদের প্রত্যক্ষ ভোটে কাউন্সিলর নির্বাচিত করেছেন। আমি সে কারনে প্রধান মন্ত্রীর আদর্শে উদ্বুদ্ধ হয়ে তার সুস্থতা এবং দীর্ঘায়ু কামনা করে তার নামে দুটি গরু কোরবানী দিচ্ছি ।

কুয়াকাটা পৌর মেয়র মো. আনোয়ার হাওলাদার বলেন, যার জন্য না হলে বাংলাদেশ নামের এই ভূখন্ড স্বাধীন হতোনা। সেই মহামানব জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর । জীবন ও দর্শণ ছিলো অসহায় মানুষের ভাগ্য উন্নয়ন। আমি সে কারনে করোনা পরিস্থিতিতে লকডাউনের স্থবির হওয়া কুয়াকাটার ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী এবং জেলেদের সাগরে ৬৫ দিনে ইলিশসহ সকল প্রকার শিকার বন্ধ থাকায় মানুষ চড়ম দুর্ভোগে ও অর্থ সঙ্কটে পতিত হয়েছে। অসহায় ও সঙ্কটাপন্ন মানুষের পাশে দাড়ানোর জন্য জাতির জনকের নামে ১০টি পশু কোরবানী করে তা এসকল পরিবারের মাঝে পৌছে দেওয়ার ব্যবস্থা করছি।

সকল নিউজ